পলিটেকনিক্যাল কলেজ এর ইতিহাস

বাংলাদেশ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট কত সাল থেকে কিভাবে চালু হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য : 1874 সালে তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতে ঢাকায় আহসান স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিং প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হয়। তখন আসাম ও অবিভক্ত বাংলায় সেটিই ছিল একমাত্র কারিগরি শিক্ষা কেন্দ্র এবং 4 বৎসর মেয়াদি কোর্স দিয়ে তার যাত্রা শুরু হয়। পরবর্তীতে উক্ত কোর্সকে 3 বছর রূপান্তরের মাধ্যমে ইঞ্জিনিয়ারিং লাইসেন্স নামে পরিবর্তন করা হয়। 1947 সালে দেশ বিভাগের সময় উক্ত প্রতিষ্ঠানের নাম ছিল আহসান উল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল এবং 3 বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা স্তরের প্রকৌশল শিক্ষার ব্যবস্থা ছিল। পরবর্তী কালে এই প্রতিষ্ঠানের নামকরণ করা হয় আহসান উল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এবং সে সময় ডিপ্লোমা স্তরের প্রকৌশল শিক্ষার পাশাপাশি ডিগ্রি স্তরের প্রকৌশল শিক্ষা ব্যবস্থাও করা হয়। সে সময় ডিপ্লোমা স্তরের প্রকৌশল শিক্ষার নামকরণ ছিল অ্যাসোসিয়েট ইঞ্জিনিয়ারিং ।

পলিটেকনিক

1949 এর ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের কারিগরি শিক্ষা কাউন্সিল এর রিপোর্ট মোতাবেক 1955 সালে করাচী ও ঢাকায় দু’টি পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট স্থাপিত হয়। তখন CLI ডিপার্টমেন্টের অধীনে আমেরিকার ফোর্ড ফাউন্ডেশন-এর অর্থানুকুল্যে স্থাপিত হয় বর্তমানের ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, তখন যার নাম ছিল ইস্ট পাকিস্তান পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট । আমেরিকার ওকলাহামা স্টেট ইউনিভার্সিটির কারিকুলাম অনুসরনে পরিচালিত 3 বছর মেয়াদি 4 টি টেকনোলজিতে সিভিল, মেকানিক্যাল, ইলেকট্রিক্যাল ও পাওয়ার 120 জন শিক্ষার্থী নিয়ে পরিচালিত ডিপ্লোমা স্তরের কোর্সটি অ্যাসোসিয়েট ইঞ্জিনিয়ারিং নামে প্রত্যয়ন হতো।

তখন আহসান উল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে পরিচালিত ডিগ্রি ও ডিপ্লোমা স্তরের কোর্সে প্রকৌশল বিষয়ে বস্তুগত ব্যবধান ছিল খুব কম, কিন্তু চাকরিতে বেতন, পদমর্যাদা ও সুযোগ সুবিধাগত ব্যবধান ছিল খুব বেশি । ফলে সে সময়ে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে পুঞ্জিভূত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটতে শুরু হতে থাকে। তাঁরা সংঘবদ্ধ হবার চেষ্টা করতে শুরু করে কিন্তু 1958 সাল থেকে আহসান উল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ভর্তি বন্ধ হয়ে যায়।

ষাটের দশকের শেষ ভাগ থেকে শুরু হয় দেশের তৎকালীন প্রতিটি শহরে একটি করে পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট স্থাপনের প্রক্রিয়া কিন্তু তখন পূর্ব পাকিস্তানে মোট ১৭টি পলিটেকনিক স্থাপিত হয়। 1994 সালে বাংলাদেশ সরকারের অধীনে 3 টি নতুন পলিটেকনিক স্থাপিত হতে থাকে । এরপর থেকে একের পর এক সরকারী ও বেসরকারী পলিটেকনিকেল কলেজ স্থাপিত হয় এবং বর্তমান অবস্থায় আসে ।

কুষ্টিয়া জেলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট তালিকা​

নংকোডপ্রতিষ্ঠানের নামওয়েবসাইট
২৭০২১হোসনাবাদ টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০২২টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০৪০কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০৭০কুষ্টিয়া বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০৭১কামরুল ইসলাম সিদ্দিক ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০৭৪দর্পণ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০৭৭বলিদাপাড়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
২৭০৭৮কুষ্টিয়া প্রকৌশল ও প্রযুক্তি ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
১০২৭০৭৯কুষ্টিয়া হাজী আবুল হোসেন ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজিক্লিক
১১২৭০৮৫কুষ্টিয়া সিটি পলিটেকনিক ও ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
১২২৭০৮৯আইডিয়াল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
১৩২৭১০৭গড়াই সার্ভে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক
১৪২৭১১৩ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউট, কুষ্টিয়াক্লিক

আমরা কিভাবে কুষ্টিয়া জেলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট তালিকা তথ্য সংগ্রহ করেছি ?

বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং তৎসংশ্লিষ্ট কারিগরি শিক্ষা বোর্ড হতে সংগৃহীত হয়েছে। তাই বিভিন্ন তথ্য ভুল ত্রুটি থাকতেই পারে। তালিকাটি নির্ভুল বা সঠিক করার জন্য আপনি আপনাদের একান্ত সহযোগিতা করবেন ।

আপনারা কিভাবে সঠিক তথ্য প্রদান করবেন ?

  1. নিচে কমেন্ট করার মাধ্যমে |
  2. আমাদের যোগাযোগের ফর্ম পৃষ্ঠা মাধ্যমে | contact
  3. আমাদের ওয়েবসাইটে ব্লগ পোস্ট করার মাধ্যমে | Sand Post
  4. আমাদের কাছে ইমেইল করার মাধ্যমে | Email